হাঁস নাকি মুরগি পালন করা লাভজনক? হাঁস-মুরগি পালনের ক্ষেত্রে কেমন আবহাওয়া দরকার? হাঁস-মুরগি পালনের ভালো ও খারাপ দিক।

adx Ar
Adx AR

আস্সালামু আলাইকুম বা আদাব।

আশা করি সকলেই ভালো আছেন। আমিও ভালো আছি। আজকে নিয়ে এলাম আমার লেখা আরও একটি পোষ্ট যা আপনাদের কাজে লাগবে। আশা করি আমার লেখা পোষ্টটি মনোযোগ দিয়ে পড়বেন।

আজকের টপিকঃ হাঁস-মুরগি পালনের ক্ষেত্রে কেমন আবহাওয়া দরকার? হাঁস ও মুরগি পালনের ভালো ও খারাপ দিক।

তো অনেক কথাই বলে ফেললাম,

এবার শুরু করা যাক।

আমরা আমাদের সকলের বাড়িতেই হাঁস ও মুরগি পালন করে থাকি। আমরা আমাদের ঘরের উঠানে হাঁস বা মুরগি পালন করে থাকি। হাঁস বা মুরগি দেখলে অথবা তার ডাক শুনলে প্রায় সকলেরই ভালো লাগে।

হাঁস প্যাক প্যাক এবং মুরগি কক কক বা কুক্কুরুকু দিয়ে থাকে। হাঁস আর মুরগির এই মন ভোলানো শুর কারই না ভালো লাগে?

১. হাঁস ও মুরগি পালনের ক্ষেত্রে কেমন আবহাওয়া দরকার?

হাঁসঃ হাঁস গরম ও শীত উভয় আবহাওয়াতেই পালন করা যায়। তবে গরম কালের ক্ষেত্রে হাঁসের একটি পুকুর, নদী বা কোন ডোবা দরকার যেখানে হাস পানি পাবে। কারণ হাঁসের প্রচুর পানি দরকার। নাহলে, হাঁসের মরে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে।

তবে বৃষ্টির দিনে হাঁস পালন করা খুব সহজ। কারণ এ সময় হাঁসকে পানি ও খাবার কিছুই দেয়া লাগে না।

মুরগিঃ মুরগিও গরম ও শীত উভয় আবহাওয়াতে পালন করা যায়। শীত কালে মুরগি শীতে মরে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে। আর গরম কালে মুরগি হাঁ করে থাকলেও এ সময়ই মুরগি পালন করা ভালো।

আর বৃষ্টির দিনে মুরগি আটকে রাখতে হয়। ছেড়ে দিলেও কিছু হয় না তবে মুরগির জ্বর হতে পারে।

অনেক সময় মুরগি কোন কারণ ছাড়াই মরে যেতে থাকে। একে "রানি ক্ষেত" বলে। এর জন্য মুরগির জন্মের ৩দিনেই রানি ক্ষেতের ভ্যাক্সিন এনে মুরগির চোখে দিতে হয়।

২. মুরগি এবং হাঁস পালনের ভালো ও খারাপ দিক কী?

মুরগি পালনের ভালো দিকঃ মুরগি পালনের ভালো দিক হচ্ছে মুরগি পালতে খুব কম খাবার লাগে। অর্থাৎ, মুরগি কম খাবার খায়।

আপনি যদি ১০টি মুরগির বাচ্চা ৫০টাকা করে ক্রয় করেন তাহলে মোট খরচ 500টাকা। আর এক মাস মুরগি পালনে খরচ হবে 500টাকা(ভ্যাক্সিন সহ)। মোট খরচ 1000 টাকা। আর এক মাসে মুরগির দাম হবে 150 টাকা। মোটঃ1500 টাকা। লাভ 500 টাকা!

আর যদি বিক্রি না করেন তাহলে মাস মাসেই মুরগি দিম পাড়া শুরু করে দেবে। আর বাচ্চাও ফোঁটাবে। এর জন্য মুরগি পালনে প্রচুর লাভ!

মুরগি পালনের খারাপ দিকঃ বৃষ্টির দিনে মুরগির জ্বর ও ঠান্ডা লাগা বা বিভিন্ন রোগ হয়। এর জন্য মুরগির মারা যাওয়ার চান্স থাকে। রানি ক্ষেতের কারণে মুরগি কোন কারণ ছাড়াই মরে যেতে থাকে।

তাই ছোট থাকতেই (৩ দিনের মুরগি) মুরগির চোখে রানি ক্ষেতের ভ্যাক্সিন দিতে হয়। আর মুরগির দুই মাস হলে রানি ক্ষেতের আরেকটি ভ্যাক্সিন ইনজেকশন এর মাধ্যমে দিতে হয়। যার জন্য ভালোই খরচ হয়।

৩. হাঁস পালনের ভালো ও খারাপ দিক কী?

হাঁস পালনের ভালো দিকঃ

হাঁসের প্রচুর পানির দরকার হয়। তাই বৃষ্টির দিনে হাঁস পালন করা খুবই সহজ। হাঁস পালনের বেশি লাভ না থাকলেও ভালোই লাভ হয়।

হাঁসের মুরগির মতো ভ্যাক্সিন লাগে না। একটি হাঁসের বাচ্চা ৫০ টাকায় কেনা যাবে। আর তার ১ মাস হলেই 175টাকায় বিক্রি করা যাবে। ১০টা কিনলে 1750 টাকা। তবে খাবারের জন্য খরচ হবে 750-850 টাকা। আর হাঁসের দাম 500 টাকা। খরচঃ 1250 টাকা লাভঃ 400/500 টাকা।

হাঁস পালনের খারাপ দিকঃ

হাঁস পানি ছাড়া বাঁচে না। তাই পানি না থাকলে হাঁসের মারা যাওয়ার চান্স থাকে। আর গরম কালে তো হাঁসের মারা যাওয়ার চান্স আরও বেশি থাকে। এছাড়া, হাঁস প্রচুর খাবার খায়। হাঁস মুরগির চেয়ে ২ বা ৩ গুণ খাবার বেশি খায়। তাই হাঁস থেকে মুরগি পালন করা লাভজনক।

আজকের পোষ্ট এখানেই শেষ। আশা করি ভালো লেগেছে। ধন্যবাদ। Divilancer এর সাথেই থাকুন।

adx ar

Enjoyed this article? Stay informed by joining our newsletter!

adx ar
Comments

You must be logged in to post a comment.

adx ar
POPULAR ARTICLES
About Author

Mini Article Writer