অকটেন কি অকটেন সবচেয়ে বেশি কোন কোন দেশে পাওয়া যায় বাংলাদেশ কোন দেশ থেকে অকটেন সরবাহ করে অকটেনের ব্যবহার

adx Ar
Adx AR

অকটেন কি

অকটেন হল একটি জৈব যৌগ যার রাসায়নিক সংকেত C8H18। এটি একটি হাইড্রোকার্বন যা পেট্রোলিয়াম, প্রাকৃতিক গ্যাস এবং তেলের অন্যান্য উৎস থেকে প্রাপ্ত হয়। অকটেন গ্যাসোলিনের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান, যা মোটর গাড়ি এবং অন্যান্য ইঞ্জিনের জন্য জ্বালানি হিসাবে ব্যবহৃত হয়।

অকটেন একটি অ্যালকেন, যা হল একটি হাইড্রোকার্বন যার অণুতে শুধুমাত্র একক কার্বন-কার্বন বন্ধন থাকে। অকটেনের আণবিক ওজন 114.23 গ্রাম/মোল এবং এর গলনাঙ্ক -57.2 ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং স্ফুটনাঙ্ক 125.6 ডিগ্রি সেলসিয়াস। অকটেন একটি বর্ণহীন, গন্ধহীন তরল।

অকটেন একটি গুরুত্বপূর্ণ জ্বালানি কারণ এটি ইঞ্জিনের দক্ষতা উন্নত করে। অকটেন সমৃদ্ধ গ্যাসোলিন ইঞ্জিনে ধাক্কা দেওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে, যা ইঞ্জিন ক্ষতির দিকে পরিচালিত করতে পারে। ধাক্কা হল একটি শব্দ যা ইঞ্জিনে জ্বালানি দহনের সময় উৎপন্ন হয়। ধাক্কা ইঞ্জিনের ক্ষতি করতে পারে এবং এর কর্মক্ষমতা হ্রাস করতে পারে।

অকটেন সংখ্যা হল একটি পরিমাপ যা একটি জ্বালানির ধাক্কা প্রতিরোধের ক্ষমতা নির্দেশ করে। অক্টেন সংখ্যা যত বেশি, জ্বালানি তত বেশি ধাক্কা প্রতিরোধী। বাণিজ্যিক গ্যাসোলিনের অকটেন সংখ্যা সাধারণত 87 থেকে 93 এর মধ্যে থাকে।

অকটেন সংখ্যা বাড়াতে, গ্যাসোলিনকে অ্যালকোহল, ইথানল বা মেথানল দিয়ে মিশ্রিত করা যেতে পারে। এই অ্যালকোহলগুলি অক্টেন সমৃদ্ধ এবং সেগুলি ইঞ্জিনের দক্ষতা উন্নত করতেও সাহায্য করে।

অকটেন সবচেয়ে বেশি কোন কোন দেশে পাওয়া যায়

অকটেন সবচেয়ে বেশি মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলিতে পাওয়া যায়। এই দেশগুলিতে প্রচুর পরিমাণে পেট্রোলিয়াম রিজার্ভ রয়েছে, যাতে প্রচুর পরিমাণে অকটেন রয়েছে।

২০২৩ সালে, বিশ্বের শীর্ষ ১০টি অকটেন উৎপাদনকারী দেশ হল:

১. সৌদি আরব
২. ইরান
৩. কাতার
৪. ইরাক
৫. সংযুক্ত আরব আমিরাত
৬. রাশিয়া
৭. যুক্তরাষ্ট্র
৮. নাইজেরিয়া
৯. কানাডা

এই দেশগুলিতে মোট বিশ্ব উৎপাদনের প্রায় ৮০% অকটেন রয়েছে।

সৌদি আরব বিশ্বের বৃহত্তম অকটেন উৎপাদনকারী দেশ। দেশটিতে প্রায় ৪০০ বিলিয়ন ব্যারেল অকটেন রয়েছে। ইরান, কাতার, ইরাক এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতও মধ্যপ্রাচ্যের অন্যান্য বড় অকটেন উৎপাদনকারী দেশ।

উত্তর আমেরিকার যুক্তরাষ্ট্র এবং কানাডাও অকটেন উৎপাদনকারী দেশ। যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় ১৫০ বিলিয়ন ব্যারেল অকটেন রয়েছে এবং কানাডায় প্রায় ১০০ বিলিয়ন ব্যারেল অকটেন রয়েছে।

আফ্রিকার নাইজেরিয়াও একটি বড় অকটেন উৎপাদনকারী দেশ। দেশটিতে প্রায় ৬০ বিলিয়ন ব্যারেল অকটেন রয়েছে।

বাংলাদেশ কোন দেশ থেকে অকটেন সরবাহ করে

বাংলাদেশ মূলত সৌদি আরব, ইরাক এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে অকটেন আমদানি করে। এই দেশগুলি বাংলাদেশ থেকে স্বল্প দূরত্বে অবস্থিত, যা পরিবহন খরচ কমাতে সাহায্য করে।

২০২৩ সালে, বাংলাদেশ প্রায় ১০০ মিলিয়ন ব্যারেল অকটেন আমদানি করেছে। এর মধ্যে প্রায় ৬০% সৌদি আরব থেকে, ৩০% ইরাক থেকে এবং ১০% সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে আমদানি করা হয়েছে।

বাংলাদেশের অকটেন আমদানির পরিমাণ প্রতি বছর বৃদ্ধি পাচ্ছে। ২০১৯ সালে, দেশটি প্রায় ৮০ মিলিয়ন ব্যারেল অকটেন আমদানি করেছিল।

বাংলাদেশ নিজের অকটেন উৎপাদন করতে চায়। এই লক্ষ্যে, সরকার একটি নতুন অকটেন উৎপাদন কেন্দ্র নির্মাণের পরিকল্পনা করছে। এই কেন্দ্রটি ২০২৫ সালের মধ্যে চালু হওয়ার কথা রয়েছে।

অকটেনের ব্যবহার

অকটেন হল একটি জৈব যৌগ যার রাসায়নিক সংকেত C8H18। এটি একটি অ্যালকেন, যা হল একটি হাইড্রোকার্বন যার অণুতে শুধুমাত্র একক কার্বন-কার্বন বন্ধন থাকে। অকটেনের আণবিক ওজন 114.23 গ্রাম/মোল এবং এর গলনাঙ্ক -57.2 ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং স্ফুটনাঙ্ক 125.6 ডিগ্রি সেলসিয়াস। অকটেন একটি বর্ণহীন, গন্ধহীন তরল।

অকটেন একটি গুরুত্বপূর্ণ জ্বালানি কারণ এটি ইঞ্জিনের দক্ষতা উন্নত করে। অকটেন সমৃদ্ধ গ্যাসোলিন ইঞ্জিনে ধাক্কা দেওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে, যা ইঞ্জিনের ক্ষতির দিকে পরিচালিত করতে পারে। ধাক্কা হল একটি শব্দ যা ইঞ্জিনে জ্বালানি দহনের সময় উৎপন্ন হয়। ধাক্কা ইঞ্জিনের ক্ষতি করতে পারে এবং এর কর্মক্ষমতা হ্রাস করতে পারে।

অকটেন সংখ্যা হল একটি পরিমাপ যা একটি জ্বালানির ধাক্কা প্রতিরোধের ক্ষমতা নির্দেশ করে। অক্টেন সংখ্যা যত বেশি, জ্বালানি তত বেশি ধাক্কা প্রতিরোধী। বাণিজ্যিক গ্যাসোলিনের অকটেন সংখ্যা সাধারণত 87 থেকে 93 এর মধ্যে থাকে।

অকটেনের প্রধান ব্যবহার হল গ্যাসোলিন উৎপাদন। গ্যাসোলিন হল মোটর গাড়ি এবং অন্যান্য ইঞ্জিনের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ জ্বালানি। অকটেন সমৃদ্ধ গ্যাসোলিন ইঞ্জিনের দক্ষতা উন্নত করে এবং ইঞ্জিনের ক্ষতির সম্ভাবনা হ্রাস করে।

অকটেনের অন্যান্য ব্যবহারগুলির মধ্যে রয়েছে:

* কেরোসিন উৎপাদন
* তেল রক্ষাকারী
* রাসায়নিক শিল্পের মধ্যবর্তী পণ্য
* পেট্রোলিয়াম পরিশোধন

অকটেন একটি গুরুত্বপূর্ণ জ্বালানি যা আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়।

adx ar

Enjoyed this article? Stay informed by joining our newsletter!

adx ar
Comments

You must be logged in to post a comment.

adx ar
POPULAR ARTICLES
About Author